সর্বশেষ সংবাদ :




» সাপধরী উচ্চ বিদ্যালয়ে বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র যমুনার দূর্গম চরে  দৃষ্টি নন্দন উন্নয়ন

Published: ০২. সেপ্টে. ২০২১ | বৃহস্পতিবার

ওসমান হারুনী,ডেস্ক নিউজ: চরবাসীর জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন ও প্রকৃতি দূর্যোগমোকাবেলায় “উন্নয়নের গণতন্ত্র ; শেখ হাসিনার মূলমন্ত্র” এই স্লোগানের আলোকে জামালপুরের দূর্গম যমুনার দ্বীপ চর সাপধরী ইউনিয়নে সরকারের দৃষ্টি নন্দন উন্নয়ন সাপধরী উচ্চ বিদ্যালয়ে বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র।

জানা গেছে, বন্যা প্রবণ ও নদী ভাঙ্গন এলাকায় বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্প (৩য় পর্যায়) এর আওতায় ২০১৯-২০২১অর্থ বছরের দুর্যোগ ব্যাবস্থাপনা অধিদপ্তর, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়ের বাস্তবায়নে তিন কোটি ১৭ লাখ টাকা ব্যয়ে ইসলামপুর উপজেলার দূর্গম যমুনার চর সাপধরী ইউনিয়নে সাপধরী উচ্চ বিদ্যালয়ে বন্যা আশ্রয় কেন্দ্রটি নির্মাণ করা হচ্ছে।

আশ্রয় কেন্দ্রটি’র নির্মাণ কাজ সরেজমিনে পরিদর্শনে জানা গেছে, বন্যা কবলিত ও নদী ভাঙ্গনের শিকার যমুনার দুর্গমচর সাপধরী ইউনিয়নের চরাঞ্চলের মানুষের জীবন যাত্রা মান আলোকিত ও দুর্যোগ মোকাবেলায় নির্মিত হচ্ছে বিশাল অট্রালিকার মতো গ্রামে শহর/নাগরিক সুবিধায় সাপধরী উচ্চ বিদ্যালয়ে বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র।
ইসলামপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা(পিআইও) অফিসের সুষ্ঠু তদারকিতে প্রায় শেষের দিকে বন্যা আশ্রয় কেন্দ্রটি’র নির্মাণ কাজ।

ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জাহিন ট্রেডার্স-প্যারেন্টস এন্ড সন্স(জেভি) প্রকল্পের বরাদ্দ অনুযায়ী সঠিকভাবে দুর্গম যমুনার চরে দৃষ্টি নন্দন এই ভবনটি নির্মাণ করছেন। শত বছরেও ভবনটি’র কিছুই হবে হবে না বলে জানিয়েছেন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।

এব্যাপারে ইসলামপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মেহেদী হাসান টিটু জামালপুর চিত্রকে জানান, ইসলামপুরে বন্যা প্রবণ ও নদী ভাঙ্গন এলাকায় বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্প (৩য় পর্যায়) এর প্রকল্পটি’র কাজ সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। ইনশায়াল্লাহ আগামী এক মাসের মধ্যে সাপধরী উচ্চ বিদ্যালয়ে বন্যা আশ্রয় কেন্দ্রটি’র কাজ শেষ হবে।

এব্যাপারে সাপধরী ইউপি চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন জানান, মাননীয় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ¦ ফরিদুল হক খান দুলাল ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের ঐকান্তি প্রচেষ্টায় চারবাসীর উন্নয়নে সাপধরী ইউনিয়নের প্রাণ কেন্দ্রে সাপধরী উচ্চ বিদ্যালয়ে বন্যা আশ্রয় কেন্দ্রটি নির্মাণ করা হচ্ছে। এটি নির্মাণের ফলে বন্যার সময় সহস্্রাধিক পরিবার এখানে আশ্রয় নিতে পারবে। এছাড়াও চরবাসীকে শিক্ষায় আলোকিত করতে এই ভবনটি যোগ যোগ ধরে সরকারের একটি আলোকিত চেরাগ হয়ে সাপধরী ইউনিয়নের ঐতিহ্য বহন করবে।প্রতিষ্ঠানটিতে মনোরম পরিবেশে ছাত্র/ছাত্র শিক্ষককের মিলন মেলা ও পাঠদান কার্যক্রম চলবে; যা চরবাসী জীবনেও কল্পনাও করতে পারেনি।
এলাকাবাসী জানান, বন্যা প্রবণ ও নদী ভাঙ্গন এলাকায় সাপধরী উচ্চ বিদ্যালয়ে বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ করা হয়েছে। নদী বেশী দূরে নয়। আশ্রয় কেন্দ্রটির খুব কাছেই নদী ভাঙ্গন শুরু হয়েছে। তাই এলাকাবাসী কোটি কোটি টাকা ব্যায়ে নির্মিত এই ভবনটি রক্ষাকল্পে নদী ভাঙ্গন রোধে পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নিকট প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেওয়ার দাবী জানিয়েছেন ।

Share Button




খোঁজাখুঁজি

October 2021
M T W T F S S
« Sep    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031

বিজ্ঞাপন

    (সাংবাদিকতা স্বাধীনতা বিশ্বাসী) প্রয়োজনে ফোন:০১৭১৮৫১৪১২৬